fbpx
সম্পর্কে ঝগড়া

দাম্পত্যে আবেগ ও বাস্তবতা

আবেগ মানুষের মনে একটি সহজাত অনুভূতি আর বাস্তবতা প্রকৃতির নিয়ম। আবেগ ছাড়া মানুষ সম্পর্ক গড়তে পারেনা আবার বাস্তবতা ছাড়া জীবন চলেনা। দাম্পত্যে সম্পর্কে আবেগ ও বাস্তবতার ইতিবাচক ও নেতিবাচক উভয় প্রভাব রয়েছে।

সম্পর্কে আবেগের প্রভাবঃ

আবেগ ছাড়া সম্পর্ক এক ঘেয়েমি হয়ে যায় তাই আবেগ সম্পর্কে ইতিবাচক ভূমিকা রাখে। আবেগ স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্ক ভালো রাখে।

একজনের আবেগীয় আচরণের ফলে দাম্পত্যে সম্পর্কে বিপরীত মানুষের আচরণে উন্নতি ঘটে। যেমন- স্বামী বা স্ত্রী কারো কঠোর মন এক সময়ে কিছুটা হলেও মনুষ্যত্বে পরিণত হয়।

অতিরিক্ত আবেগের বশে মানুষ ভুল সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকে যার ফলে ব্যাক্তিকে ভুলের স্বীকার হতে হয়। হতে পারে এ আবেগ রাগ বা কষ্ট অনুভূতি থেকে সঙ্গীর প্রতি ভুল আচরণ বা সিদ্ধান্ত চাপিয়ে দেয়া।

কখনও কখনও আবেগের ফলে সম্পর্ক হিতের বিপরীতে যায়। দেখা গেছে স্বামী বা স্ত্রী কোন অন্যায়মূলক কাজ করছে বিপরীত ব্যক্তি অতিরিক্ত ভালোবাসার ফলে দোষটিএড়িয়ে চলছে।

অতিরিক্ত আবেগের ফলে দাম্পত্যে সম্পর্কে একমুখী দায়িত্ব পালন করেন একপক্ষ। ফলে এক পর্যায়ে সম্পর্কে হতাশা তৈরি করে ও নেতিবাচক প্রভাব ফেলে।

আবেগের ফলে দাম্পত্যে ছোটখাটো বিষয়ে স্বামী বা স্ত্রী বেশ যত্নশীল ভূমিকা রাখে ফলে সম্পর্ক আরও গভীর হয়।

অতিমাত্রায় আবেগ থেকে সম্পর্কে ঈর্ষাবোধ মনোভাব তৈরি হয় ফলে দাম্পত্যে কলহ বিরাজ করে।

বেশী আবগ মানুষকে বাস্তবতা মেনে নিতে দেয় না ফলে দাম্পত্যে সম্পর্কে উভয়কে খারাপ পরিস্থিতি পোহাতে হয়।

সম্পর্কে বাস্তবতার প্রভাবঃ

জীবন সবসময়য় বাস্তব কেন্দ্রিক হতে পারেনা। অতিমাত্রায় বাস্তবতা দাম্পত্য সম্পর্কে কঠিন করে ফেলে তখন স্বামী-স্ত্রী পরস্পরের প্রতি অনীহাবোধ করে।

বাস্তবতার জন্য সম্পর্ক নিয়ন্ত্রনে থাকে। যেমন- দাম্পত্যে যদি স্ত্রী বা স্বামী বেশী আবেগ প্রবণ হয় আর বিপরীত ব্যক্তি বাস্তবমুখী হয় ফলে সম্পর্ক নিয়ন্ত্রনে থাকে।

বাস্তবতা যখন অনেক কঠিন হয়ে যায় মানুষ জীবন থেকে পালাতে চায়। ঠিক তেমনি সম্পর্কে আবেগহীন বাস্তবতা সম্পর্ক থেকে বিচ্ছেদের দিকে ধাবিত হয়।

দাম্পত্যে সম্পর্কে আবেগের চেয়ে বাস্তবতা বেশী থাকলে সে সম্পর্ক বেশীদিন স্থায়ী হয়।

অ্যালবার্ট আইনস্টাইন এর মতে- “বাস্তবতা নিছক একটি বিভ্রম, যদিও এটি খুব স্থায়ী”

তাই প্রতিটি দাম্পত্য সম্পর্কে আবেগ যেমন প্রয়োজনীয় তেমনি বাস্তবতার সমন্বয়ও খুব গুরুত্বপূর্ন। একটি স্বাস্থ্যকর দাম্পত্য সম্পর্কের জন্য আবেগ ও বাস্তবতার সমন্বয় অবশ্যই প্রয়োজন।