বিয়ে নিয়ে আয়োজন

দেখে মনে হচ্ছিল, কারও বুঝি বিয়ে। ঢাকার গুলশানে একটি হোটেলের হলরুমের বাইরে শুধু ফুল আর ফুল। ফুলে মোড়া তোরণ, ফুলের ছোট থাম। একপাশে পালকি নিয়ে অপেক্ষমাণ বেহারা। হলঘরে পা বাড়িয়ে থমকে যেতে হলো আরেকবার। পাক্কা পাঁচটি বিয়ের মঞ্চ, কোনোটা কালো পর্দায় নীলচে তারার খই ফুটিয়েছে, কোনোটা রাজকীয় লালে মেখেছে সোনালি আবির। একপাশে ফুলের কুঞ্জ, আরেক পাশে ডানা মেলা প্রজাপতি। হঠাৎ দেখি, কনেরা এসে পড়েছে। আরে, সব দেখি লাক্স সুন্দরী! রাখি, সামিয়া, সামিহা, প্রসূন আর বিপাশা। ঘটনা কী? উত্তর মিলল পন্ডসের রঙিন ব্যানার দেখে। ওহ্, আয়োজন তা হলে শুধু কনেদের নিয়ে।১৭ অক্টোবর। বিয়ের মৌসুম সামনে রেখে শুরু হলো পন্ডসের আয়োজন ‘বিউটিফুল ব্রাইড’। পন্ডস এই অনুষ্ঠান শুরু করল বিউটি স্যালন ম্যাজিক মিরর-এর সহযোগিতায়। এক দিনের আয়োজনে আরও ছিল নিউ জড়োয়া হাউস, সানজানা আর ওয়েডিং ডায়েরির অংশগ্রহণ।

শুরু হতে চলল বিয়ের মৌসুম। শীতও এসে পড়ল বলে। এই তো সময় ত্বক আর নিজেকে নিয়ে ভাবার। ইউনিলিভার বাংলাদেশের বিপণন ব্যবস্থাপক মাহাতাব হোসেন বলেন, ‘বিয়ে মানেই রোমান্সের সেরা সময়। এ জন্য তো শুধু এক দিনের যত্ন হলেই হয় না। প্রয়োজন একটু বেশি সময়ের বিশেষ যত্ন। একই মতের কারণে ম্যাজিক মিররের মাধ্যমে আমাদের এই আয়োজন। উদ্দেশ্য একটাই, প্রত্যেক বাঙালি কনেকে সুন্দর করে তোলা।’

ম্যাজিক মিররের প্রধান মেকআপ শিল্পী ফারজানা হালিম হাই বলেন, এক দিনের মেকাপে সুন্দর কনে হওয়া যায় বটে, কিন্তু নিজেকে সুন্দর রাখতে প্রয়োজন ত্বক ও চুলের নিয়মিত যত্ন। কনে মানে নিজেকে রঙের আড়ালে ঢেকে ফেলা নয়, ছিমছাম মেকআপে নিজেকে ফুটিয়ে তোলাই আসল। সে জন্য একই রূপ বিশেষজ্ঞের সাহায্যে বিয়ের অন্তত এক মাস আগে থেকে প্রস্তুতি নেওয়া উচিত।

অনুষ্ঠানের বিয়ের মঞ্চ, ফুলসজ্জাসহ আয়োজনের ছবি তোলার দায়িত্বে থাকা ওয়েডিং ডায়েরির প্রধান প্রীত রেজা বলেন, একই আয়োজনে একই সমান্তরালে সবার হাঁটার লক্ষ্য একটাই। মানুষের জীবনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ এ আয়োজনকে রঙিন করে তোলা। আর স্বপ্নপূরণের এই দিনের টুকরো টুকরো ছবি তুলে আনে ওয়েডিং ডায়েরিপাঠক, এই মৌসুমে আপনিও যদি এমন স্বপ্ন দেখেন, তা হলে প্রস্তুতি নিন এখন থেকেই।

-খাদিজা ফাল্গুনী

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।