হুস পাপিস গ্যালারীজ

হাস পাপিস একটি ব্রান্ড জুতো, যুক্তরাষ্ট্রের একটি জনপ্রিয় ব্রান্ড। বাটা বাংলাদেশে এই ব্রান্ডের জুতোর একমাত্র পরিবেশক। হাস পাপিস জুতো বাংলাদেশ ছাড়াও যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, কানাডায় ব্যাপকভাবে সমাদৃত।

ঠিকানা এবং অবস্থানঃ

ঢাকায় হাস পাপিস এর শোরুম ২টি।

গুলশানঃ

হুস পাপিস
নাফি টাওয়ার, ৫৩, গুলশান এভিনিউ,
গুলশান ১, ঢাকা।
ফোন: ০২-৮৮২৮১২০

পান্থপথ শাখাঃ

হুস পাপিস
বসুন্ধরা সিটি কমপ্লেক্স (৬ষ্ঠ তলা)
দোকান নং ১৩/৫
টেলিফোন: ৯১১১৪৪০, এক্স: ৩০৬০০

ছেলেদের জন্য(হুস পাপিস জুতোর নানা রকম)

জুতোর নাম,ধরন ও মূল্যঃ

০১.সু-ফরমাল (বড়)——————৫৮০০ টাকা
০২.স্যান্ডেলবেল্টওয়ালা (বড়)———-৩২০০ টাকা
০৩.কেডস-ফিতাওয়ালা (বড়)———৩৫০০ টাকা।

মেয়েদের জন্য (হুস পাপিস জুতোর নানা রকম)

জুতোর নাম,ধরন ও মূল্য

০১.হাই হিল(বড়)—————৪২০০ টাকা
০২.স্লিপার সু(বড়)————–৩০০০ টাকা
০৩.হিল(বড়)——————৩৫০০ টাকা।

ছোট ছেলেদের জন্য

জুতোর নাম,ধরন ও মূল্যঃ

০১.স্যান্ডেল(ছোট)————–১০৫০ টাকা
০২.সু (ছোট)——————-১৩৫০ টাকা
০৩.কেডস(বড়)—————১৪৯০ টাকা।

ছোট ছেলে/মেয়েদের জন্যঃ

জুতোর নাম,ধরন ও মূল্য

০১.ব্যাগ বেল্ট ছাড়া(ছোট)——–১৮০০ টাকা
০২.নাগড়া(ছোট)—————–৩৯০ টাকা
০৩.হিল(ছোট)——————-২৫০-৩৯০ টাকা।

জুতো সংশ্লিষ্ট পণ্যঃ

০১.মোজা(ছোট)————৯০-৪০০ টাকা পর্যন্ত।
০২.বেল্ট(ছোট)————-৭০ টাকা থেকে ১৩০ টাকা পর্যন্ত।
০৩.কালি(বড়)————-৮০ টাকা থেকে ১৩০ টাকা পর্যন্ত
০৪.সাইনার(বড়)———–১০০-১৩০ টাকা পর্যন্ত
০৫.মোজা(বড়)————-৫০০-৭০০ টাকা।

হাস পাপিস জুতোর সাইজ:

০১.জুতো———-৩৯” থেকে ৪৬” পর্যন্ত।
০২.সেন্ডেল——–৩৯” থেকে ৪৪” পর্যন্ত।
০৩.কনভাস——-৫” থেকে ১০” পর্যন্ত।
০৪.কেডস———৩২” থেকে ৪৪” পর্যন্ত।

বি:দ্র: ছোটদের জুতোর মাপ শুরু হয় ৮” থেকে ২২” পর্যন্ত। বড়দের সর্বনিম্ন জুতোর মাপ শুরু হয় ২৯” থেকে ৪৪” পর্যন্ত।

মূল্য পরিশোধ পদ্ধতি:

এখানে যে কোন পণ্যের ক্রয়ে বিল নগদ পরিশোধ করতে হয়। বিল পরিশোধে এটিএম কার্ড, ভিসা কার্ড এবং মাস্টার কার্ড ব্যবহারের সুবিধা রয়েছে। কোন প্রকার বকেয়া রাখার সুযোগ নেই।

খোলা-বন্ধের সময়সূচী:

হাস পাপিস (গুলশান শাখা) রবিবার বন্ধ থাকে এবং হাস পাপিস (বসুন্ধরা সিটি শাখা) মঙ্গলবার বন্ধ থাকে। অন্যান্য দিনে সকাল ৯ টা থেকে রাত ৮.৩০ টা পর্যন্ত খোলা থাকে।

অন্যান্য তথ্য:
• এখানে পুরনো জুতো বিক্রয়ের ব্যবস্থা রয়েছে। বছরের ডিসেম্বর মাসে সাধারনত পুরনো জুতো বিক্রয় হয়ে থাকে। পুরনো জুতো বিক্রয়ে সর্বোচ্চ ছাড় ৫০%।
•বিভিন্ন উত্সব যেমন ঈদ, পহেলা বৈশাখ ইত্যাদি উপলক্ষ্যে বিশেষ ছাড়ের ব্যবস্থা রয়েছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।