বিয়ের গাড়ি-ভাড়া

বিয়ের দৃশ্য কল্পনা করতে গেলে আমাদের মনের মানস পটে ভেসে ওঠে একটি পালকির চিত্র। ছয়জন বেহারা কাঁধে করে বয়ে নিয়ে যাচ্ছেন পালকিটি। আর পেছনে পায়ে হেঁটে হেঁটে যাচ্ছেন বরযাত্রীরা। এটা অনেক পুরোনো গ্রামবাংলার বরযাত্রার চিত্র। কিন্তু এখন সময় পাল্টেছে। পাল্টেছে যাতায়াতের মাধ্যমও। সময়ের পটপরিবর্তনের ফলে আধুনিকায়নের ছোঁয়া লেগেছে মানব জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে। এখন বরযাত্রা হয় গাড়িতে করে। এমনকি হেলিকপ্টারে করে যাওয়াও কল্পনাতীত নয়। বিয়েতে যাতায়াতের জন্য কী ধরনের গাড়ি ব্যবহূত হয় এবং তার খরচ ও খোঁজখবরের বিস্তারিত জানাতেই এই আয়োজন-

প্রাইভেটকারঃ
সাধারণত বরকে বহনের জন্য প্রাইভেটকারই বহুল প্রচলিত। যারা ভাড়ার প্রাইভেট কার ব্যবহার করতে চান, তাদের জন্য টয়োটার নর্মাল প্রাইভেটকারগুলোই সহজলভ্য। সাধারণমানের এই প্রাইভেটকারগুলোর ভাড়া প্রতিদিন পনের’শ থেকে দুই হাজার টাকার মধ্যে। তবে, যাদের আর্থিক সচ্ছলতা বেশি তারা অনেকেই একটু বিলাসবহুল গাড়ি ব্যবহার করতে চান।

বিলাসবহুল গাড়িগুলোর ভিতরে ঢাকা শহরে ভাড়া পাওয়া যায় মার্সিডিস বেঞ্চ, মিৎসুবিসি ল্যান্সার জিএল এক্স, টয়োটা করোলা জিএক্স ইত্যাদি এই গাড়িগুলোর ভাড়া প্রতি ১০ ঘন্টার জন্য ১০ হাজার থেকে ২০ হাজার টাকার মধ্যে এ ছাড়া জিপ গাড়ির ভেতরে পাওয়া যায় টয়োটা প্রাডো, হ্যারিয়ার, পাজেরো ইত্যাদি। এই গাড়িগুলোর ভাড়া পড়বে প্রতি ১০ ঘন্টায় ১৫ হাজার টাকা।

বিলাসবহুল গাড়িগুলো ভাড়া পাওয়া যায় ‘হাটজ’-এ। ফোন : ৯৮৮৪৩১১, ৮৮১৩২৪২, ০১৯১৩২২২২৯।

তবে বিয়েতে সবচেয়ে বেশি ব্যবহূত হয় মাইক্রোবাস। অধিক আসন থাকায় এবং সহজলভ্য হওয়ায় মাইক্রোবাসগুলো বেশি জনপ্রিয়। এবং মাইক্রোবাসগুলোর সুবিধা হচ্ছে খুব সাধারণভাবে এগুলো ব্যবহার করা যায়।  ঢাকার মধ্যে এবং ঢাকার বাইরে মাইক্রোবাসের ভাড়ার পরিবর্তন হয়। নয় সিটের মাইক্রোবাসগুলো ঢাকার মধ্যে ভাড়া ২ থেকে ৩ হাজার টাকার মধ্যে। আর ঢাকার বাইরে ভাড়া ৪ হাজার টাকা। ১২ সিটের মাইক্রোবাসের ভাড়া ২ হাজার টাকা থেকে ৩ হাজার টাকার মধ্যে। এ ছাড়া টয়োটা নোয়া ও ভক্সির ভাড়া ঢাকার মধ্যে প্রতি ১০ ঘন্টায় ৩ হাজার টাকা এবং ঢাকার বাইরে সাড়ে ৩ হাজার টাকা থেকে ৪ হাজার টাকা। এই গাড়িগুলো সাধারণত ৯ সিটের হয়ে থাকে।

রেন্ট-এ কারঃ

 

সেতু-রেন্ট-এ কার : ৯১৪২৬৪৪, ৮১৩০৭৪৬, ০১৮১৯২৮০০৮০
সোহাগ রেন্ট-এ কার : ০১৭১১৫৬৮৮৭৪, ৮১১৯৮১২১
মর্ডান রেন্ট-এ কার : ৮১৫৮৫৩০, ০১৭১৫০৫০৬৯৯, ০১৭১৩২৬১৬১৯
ভিআইপি রেন্ট-এ কার : ০১৭১৫১২৪১২৬, ০১৭২০২৭৭৭৯৯
সৌখিন রেন্ট-এ কার : ৯১৪৪৩৯৮, ০১৭১১৫২৮৪৫৩।

জেনে রাখুনঃ
যেহেতু সময় হিসাবে গাড়ি ভাড়া দেওয়া হয় সেহেতু কতক্ষণের জন্য গাড়ি ভাড়া নিবেন সেই ব্যাপারে পুরোপুরি নিশ্চিত হয়ে নিন। গাড়ি ভাড়া করতে হলে কমপক্ষে দু’দিন আগে বুকিং দেওয়া উচিত। গাড়ির জন্য আনুষঙ্গিক খরচ যেমন- টোল, পার্কিং চার্জ ইত্যাদি নিজেকেই বহন করতে হবে। জ্বালানি খরচ যিনি গাড়ি ভাড়া নেন, তার নিজেকেই বহন করতে হয়। (তবে অনেক সময় প্যাকেজ চুক্তিতেও গাড়ি ভাড়া নেয়া হয়। সেক্ষেত্রে আনুষঙ্গিক কোনো খরচ যিনি ভাড়া করেন তাকে বহন করতে হয় না।)  গাড়ি প্রতিষ্ঠানের এবং চালকের সম্বন্ধে বিস্তারিত তথ্য আগেই জেনে নিন। এবং তাদের ফোন নম্বর রেখে দেওয়াটাও জরুরি।  বিয়েতে ব্যবহারের সময় গাড়ি সাজানোসহ নানা কারণে গাড়ি নোংরা হতে পারে। তাই গাড়ির ড্রাইভারকে দু’তিন’শ টাকা টিপস দিন গাড়ি পরিষ্কার করার জন্য।

 ব্যতিক্রমী ভাবনা ::
অনেকে নিজের বরযাত্রাকে একটু ব্যতিক্রমী করতে ঘোড়ার গাড়ি বা টমটম ব্যবহার করেন। পুরান ঢাকায় ঘোড়ার গাড়ি ভাড়া পাওয়া যায়। ঘোড়ার গাড়ির ভাড়া প্রতিদিনের জন্য ৪ হাজার থেকে ৫ হাজার টাকা।

কোথায় পাওয়া যাবে:
ভাই ভাই টমটম : ০১৭১২৫৭১৫৬৩, ০১৭২২৪৭১০৭৫।
নানানাতি টমটম : ০১৭১৫৯৬৭৩৩২।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।